ওয়ালটন বিশেষ শিশু-কিশোরদের শীতকালিন ক্রীড়া উৎসব ১৮ ফেব্রুয়ারি শুরু

ভোরের বাংলাদেশ ডেস্ক ঃ

ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় ও জাতীয় প্রতিবন্ধী ক্রীড়া সমিতির (এনএএসপিডি)
ব্যবস্থাপনায় আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ওয়ালটন বিশেষ শিশু-কিশোরদের
শীতকালিন ক্রীড়া উৎসব-২০২১। ৩৮টি ক্যাটাগোরিতে দুই শতাধিক বিশেষ শিশু-কিশোরদের
নিয়ে ধানমন্ডির সুলতানা কামাল মহিলা ক্রীড়া কমপ্লেক্সে দুইদিন ব্যাপী এই প্রতিযোগিতা
১৯ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হবে।
এই প্রতিযোগিতার বিষয়ে বিস্তারিত জানানোর জন্য আজ বৃহস্পতিবার (৪ ফেব্রুয়ারি)
বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ
সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক
(গেমস এন্ড স্পোর্টস, মার্কেটিং) ও জাতীয় প্রতিবন্ধী ক্রীড়া সমিতির সভাপতি এফএম
ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন), ওয়ালটন গ্রুপের ডেপুটি ডিরেক্টর মেহরাব হোসেন আসিফ,
জাতীয় প্রতিবন্ধী ক্রীড়া সমিতি ও জাতীয় প্রতিবন্ধী ফোরামের মহাসচিব ড. সেলিনা
আক্তারসহ অন্যান্যরা।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় এবারের এই শীতকালিন ক্রীড়া উৎসবে সারাদেশের বিভিন্ন
প্রতিবন্ধী সংস্থা, সংগঠন ও স্কুলের ২ শতাধিক শিশু-কিশোর অংশ নিবে। সাধারণত প্যারা
অলিম্পিকে যে সকল ডিসিপ্লিন থাকে সেসব ডিসিপ্লিনে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। মোট
৩৮টি ক্যাটাগোরিতে দুই শতাধিক শিশু-কিশোর অংশ নিবে। প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন,
রানার্স-আপ দলকে ট্রফি দেওয়া হবে। এ ছাড়া প্রতিটি ক্যাটাগোরিতে ভালো করা বিশেষ শিশু-
কিশোরদের ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে পুরস্কৃত করা হবে।
সংবাদ সম্মেলনে এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) বলেন, ‘এর আগে আমরা ওয়ালটন
পরিবার ‘সুইড’ বাংলাদেশের সঙ্গে বিশেষ শিশু-কিশোরদের জন্য কাজ করেছি। গেল প্রায় ৮
বছর ধরে এনএএসপিডি এর সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছি। তারই ধারাবাহিকতায় এবারও তাদের
সঙ্গে কাজ করতে যাচ্ছি। ওয়ালটন পরিবার সব সময় এই বিশেষ শ্রেণির শিশু-কিশোরদের নিয়ে
কাজ করতে আগ্রহী। কারণ, আমাদের দেশের শিশুদের জন্যই খুব বেশি সুযোগ নেই। সেখানে
প্রতিবন্ধী শিশুদের সুযোগের কী অবস্থা সেটা সহজেই অনুমেয়। আমাদের প্রতিবন্ধী শিশুরা
নানারকম সুযোগ-সুবিধা পেলে হয়তো তারাও অনেক বড় হতে পারবে। কারণ, আমরা বিশ্বাস
করি বাংলাদেশে অনেক প্রতিভাবান প্রতিবন্ধী শিশু রয়েছে। আমরা ওয়ালটন পরিবার এ
ধরণের সব শিশুদের নিয়েই কাজ করতে চাই।’
ড. সেলিনা আক্তার বলেন, ‘আমাদের সঙ্গে ওয়ালটন গ্রুপ অনেকদিন ধরে কাজ করছে।
ওয়ালটন গ্রুপের মতো একটি প্রতিষ্ঠান আমাদের এমন উদ্যোগের পাশে থাকায় কৃতজ্ঞতকা
প্রকাশ করছি। এ ধরণের পিছিয়ে পড়া অসহায় প্রতিবন্ধী শিশুদের জন্য এগিয়ে আসা খুবই

প্রয়োজন। ওয়ালটন আন্তরিকতার সঙ্গে এই কাজে এগিয়ে এসেছে। ওয়ালটন গ্রুপের মতো
অন্যান্য প্রতিষ্ঠানেরও উচিত প্রতিবন্ধী শিশুদের সাহায্যার্থে এগিয়ে আসা। আমরা জাতীয়
প্রতিবন্ধী ক্রীড়া সমিতি (এনএএসপিডি) ২০০০ সাল থেকে সব ধরণের প্রতিবন্ধীদের নিয়ে
কাজ করছি। বছরে বেশ কয়েকবার তাদের নিয়ে ক্রীড়া উৎসবের আয়োজন করি। জাতীয়
পর্যায়ে আয়োজিত ক্রীড়া উৎসবে ২ হাজার ৩ হাজারের মতো বিশেষ শিশু-কিশোর অংশ নেয়।
এবারের এই শীতকালিন আয়োজনে দুই শতাধিক প্রতিবন্ধী শিশু-কিশোর অংশ নেবে।’
এই প্রতিযোগিতার মিডিয়া পার্টনার এটিএন বাংলা, এটিএন নিউজ ও আরটিভি। রেডিও
পার্টনার রেডিও টুডে। সহযোগিতায় রয়েছে ওয়ালটন গ্রুপের জনপ্রিয় ব্র্যান্ড মার্সেল। আর
অনলাইন পার্টনার দেশের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজপোর্টাল রাইজিংবিডি ডটকম।

Pin It

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *