করোনা দমাতে পারেনি স্বেচ্ছাসেবী ব্লাড ফাউন্ডেশনের রক্তদান

মো. সেলিম হোসেন, গোপালপুর-টাঙ্গাইল:
‘মুমূর্ষু রোগীর প্রাণের টানে এগিয়ে আসুন রক্তদানে’ স্লোগানকে সামনে রেখে সারাদেশে রোগীদের প্রাণ বাঁচাতে বিনামূল্যে রক্ত দিয়ে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে স্বেচ্ছা সেবক ব্লাড ফাউন্ডেশন। মহামারী করোনাভাইরাস দমাতে পারেনি এ ফাউন্ডেশনের একদল তরুণ স্বেচ্ছাসেবকের রক্তদান কর্মসূচি।
জানা যায়, স্বেচ্ছা সেবী ব্লাড ফাউন্ডেশন গাজীপুর, ভালুকা ও ময়মনসিংহ থেকে একযুগে ২০১৯ সালের ২৫ জুন সর্বপ্রথম যাত্রা শুরু করে। এরপর টাঙ্গাইল জেলায় এর কার্যক্রম ছড়িয়ে পড়ে। সাত মাসের মাথায় এ জেলায় কাজের ব্যাপক সফলতা পায় এ সংগঠন। আর তাই টাঙ্গাইলেই এ সংগঠনের কেন্দ্রিয় কমিটি দেয়া হয়। যার উপদেষ্টা হিসাবে কাজ করছেন আবদুল্লাহ আল মামুন পিন্টু। বর্তমানে টাঙ্গাইলের কালিবাড়ী জাগ্রত নিউজ মিডিয়া থেকে এর সকল কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। হাবীব চৌধুরী নামে একজন উদ্যোক্তা অসহায় মুমূর্ষু রোগীদের সেবা দেয়ার জন্য এ ফাউন্ডেশন গঠন করেন। তিনি ঘাটাইলের কৃতিসন্তান। সেবামূলক এ কাজের পাশাপাশি তিনি একটি ঔষধ ফার্মেসী পরিচালনা করেন। মাঝে মাঝে এ ফার্মেসীর ঔষধ হতদরিদ্র রোগীদের বিনামূল্যে দিয়ে থাকেন তিনি। নিজে রক্তদান করে চলতি মাসে এ সংগঠনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করেছেন তিনি।
106390810_1022569938158910_8203592898419454027_n
২০১৯ সালের ২২জুন সড়ক দূর্ঘনায় মারাত্বকভাবে আহত হয়ে পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় পা হারান যুগান্তর পত্রিকার টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলা প্রতিনিধি মো. সেলিম হোসেন। সে সময় তার শরীরে প্রচুর রক্তের প্রয়োজন হয়। যার সিংহভাগ রক্তদান করেন এ ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবকরা। তিনি এ সংগঠনের সমৃদ্ধি কামনায় কৃতজ্ঞচিত্তে জানান, সেই দুঃসময়ে স্বেচ্ছা সেবক ব্লাড ফাউন্ডেশন আমাকে রক্ত দিয়ে নতুন জীবনদানে অপরিসীম ভূমিকা পালন করেছেন।
88958513_1087389184946347_2561650715902607360_n
হাবীব চৌধুরী বিনামূল্যে রক্ত দিয়ে মানবসেবা করতে গিয়ে প্রতিপক্ষের প্রতিহিংসার আঘাতে অনেকবার ক্ষতবিক্ষত হয়েছেন। একটি কুচক্রীমহল তার সুনাম নষ্ট করতে অকারণে তাকে মিথ্যা অপবাদ দিয়েছেন। কেউ কেউ অপ্রচার করতেও পিছপা হননি। মূলত এ সবকিছুই তার গতিরোধ করে স্বেচ্ছায় রক্তদান বন্ধ করার জন্য করা হয়েছে।
দুরন্ত সাব্বির মন্ডল নামে এ ফাউন্ডেশনের একজন তরুণ স্বেচ্ছাসেবক বলেন, অতীত দিয়ে মানুষের বর্তমানকে বিচার করা বুদ্ধিমানের কাজ নয়। বর্তমানে হাবীব চৌধুরী একজন সত্যিকারার্থে মানুষ। নিন্দুকের নিন্দনীয় কর্মকান্ডের দাঁতভাঙ্গা জবাব দিতে সমস্ত বাঁধা উপেক্ষা করে স্বেচ্ছায় রক্তদানে তার সংগঠন একদিন বিশ্বে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে।
স্বেচ্ছা সেবক ব্লাড ফাউন্ডেশন প্রসঙ্গে হাবীব চৌধুরী বলেন, আমাদের দেশে রক্তের অভাবে রোগীর অকাল মৃত্যুরোধে মূলত এ সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করেছি। সারাদেশে এ সংগঠনের কার্যক্রম পরিচালনার মাধ্যমে বিনামূল্যে রক্তদিয়ে অকাল মৃত্যুর হাত থেকে একজন রোগীকে নতুন জীবনে ফিরিয়ে দেয়াই আমাদের একমাত্র লক্ষ্য।

এই রকম আরো কিছু খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button