গোপালপুরে মাতৃত্বকালীন ভাতা নিয়ে প্রতারণা করায় যুবকের কারাদণ্ড

মো. সেলিম হোসেন, গোপালপুর-টাঙ্গাইল:
গোপালপুরে সরকারি আদেশ অমান্য করে মাতৃত্বকালীন ভাতা নিয়ে প্রতারণা করার অপরাধে জনি (২৪) নামে এক যুবককে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। রবিবার বিকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পারভেজ মল্লিক ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে এ দণ্ডাদেশ দেন। প্রতারক জনি হেমনগর শশিমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মঞ্জুরুল হোসেনের ছেলে।

জানা যায়, হেমনগর ইউনিয়ন থেকে তিন ভুক্তভোগী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পারভেজ মল্লিক ও মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা তাপসি শীলের জাল স্বাক্ষর করা মাতৃত্বকালীন ভাতা পরিশোধ কার্ড নিয়ে টাকার জন্য মহিলা বিষয়ক কার্যালয়ে যান। কর্তৃপক্ষ অফিস রেজিস্ট্রারে কার্ডগুলো তালিকাভুক্ত না পেয়ে ইউএনওকে অবহিত করেন। অনুসন্ধানে দেখা যায়, হেমনগর ইউনিয়নের ২৫জন গর্ভবতী মহিলার কাছ থেকে মাতৃত্বকালীর ভাতা কার্ড করে দেয়ার কথা বলে ৬হাজার টাকা করে ঘুষ নেয় প্রতারক জনি। বৈধভাবে কার্ড করে দিতে না পেরে স্বাক্ষর জাল করে ভুয়া ভাতা পরিশোধ কার্ড তাদের হাতে ধরিয়ে দেয় সে। পরে, সরেজমিনে ওই ইউনিয়নে গিয়ে জনিকে আটক করে এ দণ্ডাদেশ  দেয়া হয়।

এই রকম আরো কিছু খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button