মোটরসাইকেলে যাত্রী পরিবহন নয়: ডিএমপি

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশে করোনাভাইরাস মহামারি বিস্তার রোধে চলমান লকডাউনে মোটরসাইকেল চালকদের যাত্রী বা আরোহী বহন না করতে নির্দেশনা জারি করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। নতুন নির্দেশনায় ডিএমপি বলছে, মোটরসাইকেলে চালক ছাড়া কোনো আরোহী বহন করা যাবে না। বিকল্প হিসেবে রিকশায় চলাচলে উৎসাহ দিয়েছে বাহিনীটি।

সোমবার রাতে ঢাকা মহানগর পুলিশের জনসংযোগ ও গণমাধ্যম শাখার অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (এডিসি) ইফতেখায়রুল ইসলাম এ নির্দেশনার বিষয়ে জানান।

এডিসি ইফতেখায়রুল ইসলাম জানান, করোনা সংক্রমণ রোধে সরকার সারাদেশে লকডাউন ঘোষণা করেছে। এই লকডাউনের মধ্যে মোটরসাইকেলে চালকের সঙ্গে পরিচিত ব্যক্তি রাইড শেয়ার করছেন। অথবা কেউ কেউ পেশাগত কারণেও রাইড শেয়ার করছেন। ফলে একই হেলমেট বারবার বিভিন্নজন ব্যবহার করছেন। এতে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়ছে।

নির্দেশনায় বলা হয়, ‘করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ওয়েভের এই ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ পরিস্থিতি বিবেচনায় জরুরি প্রয়োজন ছাড়া চালক ব্যতীত অন্য আরোহী নিয়ে মোটরসাইকেলে চলাচলে নিরুৎসাহিত করছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ। এই সময়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে রিকশায় যাতায়াতের জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে।

করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে আজ সকাল ছয়টা থেকে পহেলা জুলাই ভোর ছয়টা পর্যন্ত সীমিত পরিসরে লকডাউন ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার। গতকাল (২৭ জুন) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।পহেলা জুলাই থেকে এক সপ্তাহের জন্য কঠোর লকডাউন দেয়া হবে বলে জানিয়েছে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

রবিবারের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে-

১. সারাদেশে পণ্যবাহী যানবাহন ও রিকশা ব্যতীত সকল গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে নিয়মিত টহলের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে।

২. সকল শপিংমল, মার্কেট, পর্যটনকেন্দ্র, রিসোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার ও বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ থাকবে।

৩. খাবারের দোকান, হোটেল-রেস্তোরাঁ সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খাবার বিক্রয় (শুধুমাত্র Online/Take way) করতে পারবে।

৪. সরকারি-বেসরকারি অফিস বা প্রতিষ্ঠানগুলো শুধুমাত্র প্রয়োজনীয় সংখ্যক কর্মকর্তা ও কর্মচারীর উপস্থিতি নিশ্চিত করতে নিজ নিজ অফিসের ব্যবস্থাপনায় তাদের আনা-নেওয়া করতে হবে।

৫. জনসাধারণকে মাস্ক পরার জন্য আরো প্রচার-প্রচারণা চালাতে হবে এবং প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

এই রকম আরো কিছু খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button