শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত ২৫ আগস্টের পর

নিজস্ব প্রতিবেদক
করোনাভাইরাসের কারণে বন্ধ থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। আগামী ২৫ আগস্টের পর এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন।
সোমবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।
করোনাভাইরাসের কারণে স্থগিত থাকা এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে সচিব মাহবুব হোসেন বলেন, ‘আমরা যখনই পরীক্ষা নেব, প্রকাশ্যে এটি ঘোষণা করব। এটা গোপন কোনো সিদ্ধান্ত নয়। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমোদন নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে পরীক্ষা শুরুর বিষয়ে ঘোষণা করা হবে। এটা নিয়ে গুজব ছড়ানোর কোনো যৌক্তিকতা ও ভিত্তি থাকা উচিত না।’
তিনি বলেন, ‘এটি (এইচএসসি) একটি পাবলিক পরীক্ষা, এর সঙ্গে আমাদের বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থীর জীবন জড়িত। এটা নিয়ে যদি আমরা গুজব ছড়িয়ে বিভ্রান্ত তৈরি করি, আমি বলব যে, সমাজের প্রতি শিক্ষার্থীদের প্রতি যে দায়বদ্ধতা আছে সেটির বড় ধরনের ব্যত্যয়।’
সরকারের ও দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের তরফ থেকে কোনো সিদ্ধান্ত বা ঘোষণা না পাওয়া পর্যন্ত এ ধরনের কোনো গুজব বা কোনো মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকতে অনুরোধ জানান তিনি।
সচিব বলেন, ‘শিক্ষামন্ত্রী সুস্পষ্টভাবে বলেছেন, আমরা যখনই পরীক্ষা নেব, দুই সপ্তাহের নোটিশ দিয়ে সবাইকে জানিয়ে দেওয়া হবে।’
তিনি বলেন, ‘পরীক্ষার তারিখ ঠিক করে আমরা প্রকাশ্যে জানাব। আমাদের তরফ থেকে সব সময় আমরা প্রস্তুত, আগেও প্রস্তুতি ছিল। এখন কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে বিশেষ প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছি যে, স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে যাতে প্রয়োজনে সেন্টার সংখ্যা বাড়িয়ে যাতে পরীক্ষা নেওয়া যায়। যখনই আমরা তারিখ ঠিক করব, তাতে স্বাস্থ্যবিধি যেন যথাযথ অনুসরণ করতে পারি, সেটি আমরা নিশ্চিত করব।’
নভেম্বরে আসন্ন জেএসসি পরীক্ষা নিয়ে সচিব বলেন, ‘আমরা যখনই পরিপূর্ণভাবে সিদ্ধান্ত নেব, তখনই আপনাদের জানাব। শুধু জেএসসি না, অন্যান্য পরীক্ষার বিষয়ে আমাদের বিশেষজ্ঞরা যে পরামর্শ দিয়েছেন সেগুলো পর্যালোচনা করে আমরা উপযুক্ত সময়ে ঘোষণা করব, আমরা কী করতে যাচ্ছি।’
গত ১৭ মার্চ থেকে করোনার কারণে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।
শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সচিব মাহবুব হোসেন বলেন, ‘আমরা কাছাকাছি সময়ে গিয়ে তখন আমরা সিদ্ধান্ত ঘোষণা করি। ২৫ তারিখের পরে আমরা ঘোষণা করব যে, কী করব।’
পর্যায়ক্রমে বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ, স্কুল খোলা হবে কি না- প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘যখনই আমরা ক্লিয়ারেন্স পাব, তখনই জানাব

এই রকম আরো কিছু খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button