সুনামগঞ্জে ভারতীয় মদসহ ১জন গ্রেফতার

নিজেস্ব প্রতিবেদক,সুনামগঞ্জ: সুনামগঞ্জে ভারতীয় মদসহ ১জন মাদক
ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। নাম কাউসার মিয়া (২৯)। সে জেলার তাহিরপুর
উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের মাহারাম গ্রামের মৃত ফজর আলীর ছেলে। আজ
২৪.১২.২০ইং বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় পুলিশ মাদক ব্যবসায়ী কাউসারকে
জেলহাজতে পাঠিয়েছে।
এব্যাপারে পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়- প্রতিদিনের মতো গতকাল
বুধবার রাত ৭টায় জেলার তাহিরপুর সীমান্তের লাউড়গড় বিজিবি ক্যাম্পের
যাদুকাটা নদী দিয়ে বিজিবি অধিনায়কের সোর্স পরিচয়ধারী আমিনুল,
নবীকুল,জসিম মিয়া,নুরু মিয়াগং ভারতের ভিতরে প্রবেশ করে পাথর ও কয়লা পাচাঁর
করে বিজিবি ক্যাম্প সংলগ্ন শাহ আরেফিন মোকাম এলাকাসহ যাদুকাটা নদীর
তীরে মজুত করে। আর মদ,গাঁজা বিড়ি ও ইয়াবা পাচাঁর করে বিভিন্ন বাড়িঘরের
ভিতর লুকিয়ে রাখে। এই খবর পেয়ে যাদুকাটা নদীতে অভিযান চালিয়ে ১০বোতল
ভারতীয় অফিসার চয়েজ মদসহ মাদক ব্যবসায়ী কাউসার মিয়াকে গ্রেফতার করে
বিজিবি। কিন্তু সোর্সদের গ্রেফতারের ব্যাপারে নেওয়া হয়নি কোন পদক্ষেপ। অথচ
এই লাউড়গড় সীমান্তের যাদুকাটা নদী দিয়ে পাচাঁরকৃত চোরাই কয়লা নিয়ে
বিজিবি ও সোর্স পরিচয়ধারী চোরাচালানীদের মধ্যে সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা
ধাওয়াসহ ১১ রাউন্ড গুলি বর্ষন করা হয়। এই সংঘর্ষের ঘটনায় নারী,শিশু ও বিজিবি
সদস্যসহ ১৫ জন আহত হয়। পরে সালিশের মাধ্যমে এই ঘটনাটি সমাধান করে
এলাকাবাসী। তারপরও ১০জনের নাম উল্লেখসহ গং দিয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের
করে বিজিবি। কিন্তু লাউড়গড় সীমান্ত দিয়ে পাথর ও কয়লাসহ মাদক পাচাঁর বন্ধ
হয়নি। কারণ সোর্সদের গ্রেফতারের ব্যাপারে কখনোই নেওয়া হয়না কোন পদক্ষেপ।
এব্যাপারে তাহিরপুর থানার ওসি আব্দুল লতিফ বলেন-ভারতীয় মদসহ কাউসার মিয়া
নামের একজনকে বিজিবি গ্রেফতার করে থানায় সোপদ করার পর মামলা দিয়ে
তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

এই রকম আরো কিছু খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button